তালীমুল কুরআন

কুরআন পাঠ করার গুরুত্ব সম্পর্কে মহান আল্লাহ তাআলা বলেন, তুমি প্রভাতে কুরআন পাঠ কর, নিশ্চয়ই প্রভাতে কুরআন পাঠ আল্লাহর নিকট পছন্দনীয়।(১৭:৭৯)। হযরত রসুলে করীম (সা;) বলেন, তোমাদের মধ্যে সেই ব্যক্তিই উত্তম যে নিজে কুরআন শিখে এবং অন্যকে শিখায়। 
শেষ যুগের প্রতিশ্রুত সংষ্কারক হযরত মসীহ মাওউদ (আ:) বলেন, তোমাদের প্রতি আমার আর এক অত্যাবশ্যকীয় উপদেশ এই যে, তোমরা কুরআন শরীফকে এক অনাবশ্যকীয় দ্রব্যের  ন্যায় পরিত্যাগ করিওনা। কারন কুরআনেই তোমাদের জীবন রহিয়াছে। ইহা এক মহা সম্পদ। যদি বাহ্যিক বা অভ্যন্তরীন কোন বিঘ্নতা না থাকে তবে কুরআন শরীফ তোমাদেরকে এক সপ্তাহের মধ্যে পবিত্র করিতে পারে।
আসুন, আমরা স্বর্গীয় সম্পদে পরিপূর্ণ এই পুস্তকটি নিয়মিত পাঠকরি এবং অন্যকে শিখাই। স্বীয় আত্মাকে ঐশী স্বীকৃত পবিত্রতায় পরিপূর্ণ করি।খোদা তায়ালা যেন আমাদেরকে এই বলে সম্বোধন করেন,হে শান্তি প্রাপ্ত আত্মা ! তুমি  তোমার প্রতিপালকের নিকট এমন অবস্থায় ফিরে আস যে, তুমি (তাঁর প্রতি) সষ্তুষ্ট এবং তিনিও (তোমার প্রতি) সন্তুষ্ট। সুতরাং তুমি আমার  নেক বান্দাগনের মধ্যে গন্য হও এবং প্রবেশ কর আমার জান্নাতে।

কেন্দ্রীয় বাংলাডেস্ক কর্তৃক পরিচালিত কোরআনের শাব্দিক অর্থের ক্লাস